আলমডাঙ্গা

119
আলমডাঙ্গা, টিপু সুলতান বারী
আলমডাঙ্গা রেল স্টেশন।

আমার তখন বসন্তকাল, রঙঝিলমিল স্বপ্নমেলা
মন প্রাণিত, বোধ শাণিত, তখন জ্বলে উঠার বেলা।
অগ্নিঝরা সেই আঠারোয় পড়তে গেলাম আলমডাঙ্গা
ছবির মতন ছোট্ট শহর, লাল গোলাপের মতন রাঙা ।

আলমডাঙ্গা বন্ধু হলো, আলমডাঙ্গা বাসলো ভালো
আলমডাঙ্গা দুচোখ ভরে ছড়িয়ে দিল সোনার আলো ।
আলমডাঙ্গা তুললো আমায় বুকের গোলায় রত্ন করে
মন ভরালো, চোখ জুড়ালো, আদর এবং যত্ন করে ।

আলমডাঙ্গা করলো যাদু, মন প্রাণ সব করলো হরণ
পত্র লিখি লাল সবুজের, ছন্দ গাঁথি হলুদ বরণ ।
আলমডাঙ্গা বুকের পাড়ায় শ্যামের মত বাজায় বাঁশী
রাধার মত পাগল করে, গোলাপ ফোটায় বারোমাসী ।

আলমডাঙ্গার রূপ লাবণী, পারুল যূথী গিনি সোনা
আলমডাঙ্গার চাঁদের হাটে স্বপ্ন বেচি, কিনি সোনা ।
আলমডাঙ্গার আনিস জাহিদ রন্টু হামিদ ঢুকলো মনে
সবাই আমার সবুজ ক্ষেতে কাঁচা হলুদ স্বপ্ন বোনে ।

জাহিদ এখন গর্ব সবার, ফেরি করে আলোর চিঠি
চাকরি করে জাতিসংঘে, বসত করে ডালাস সিটি ।
আনিস এখন ডক্টর আনিস, নরসিংদীর পলাশ থাকে
ডক্টরেটের মূল্য অনেক, হাজার স্যালুট জানাই তাকে ।

আনন্দধাম কলেজ পাড়ায় রঙিন সুতোয় বোনা সবই
ছাত্রাবাসের মধুর স্মৃতি, টুকরো টুকরো সোনা সবই ।
সাইফুল ভাই, ঠান্ডু কারু, হাতেম রশিদ তরফ লাকি
কেউ জানে কি, আমি এখন কোথায় এবং কেমন থাকি?

মিষ্টি কলেজ, স্যাররা সবাই আছেন অমর মন-ভূবনে
সন্তোষ স্যার, ট্রাজেডি এক, মরেও বাঁচেন সবার মনে ।
নেওয়াজ বকুল মঈন মিঠু,জামসিদুল হক থাকুক ভালো
সোনার আলোয় হাসুক জীবন,দূর হয়ে যাক সকল কালো।

সাইন্স গ্রুপে খুব মেধাবী আতিয়ারটা ডাক্তার হলো
লিপু থাকেন জার্মানিতে, অনেক উঁচু নাক তার হলো।
ভালোই আছে সিরাজ হেলাল,গোবিন্দপুর গ্রামের নীলা,
ইসমত ইশা অধ্যাপিকা, কেমন আছে লায়লা রিলা ?

মধুর কলেজ, হাজার স্মৃতি মন-সিনেমায় ভাসতে থাকে
মুখর কলেজ, সেগুন ছায়া, বন্ধুরা সব হাসতে থাকে ।
গান কবিতা অনুষ্ঠানে , নবীন বরণ দেয়ালিকায়
মগ্ন থাকি দিন-রজনী, আমার সুখের সময় বিকাই ।

রোজ বিকালে বেড়াই ঘুরে, কলেজ পাড়া বাবু পাড়ায়
লাল ব্রীজ আর ক্যানেল ধরে একটু হাঁটি, একটু দাঁড়াই।
রন্টু হামিদ সংগী রোজই, গল্প করে মাতিয়ে রাখে
সেই তিরাশি পঁচাশি সাল, বুকের ভেতর ঘুমিয়ে থাকে ।

ইচ্ছা ছিল সূর্য ছোঁবো, কিন্তু আমি ছুইনি ছাদও
কে যেন কয়,” এই বয়সেও নুতন করে কোমর বাঁধো।”
আমার যত হলুদ গাঁদা, আলমডাঙ্গায় ফুটেছিলো
আমার যত হলুদ পাখি, আলমডাঙ্গায় জুটেছিলো ।

আলমডাঙ্গা সব দিয়েছে, আমি কিছুই দিইনি তাকে
লজ্জা করে, পালিয়ে বেড়াই, আলমডাঙ্গা শুধুই ডাকে।
রাখছি বুকে আলমডাঙ্গার সোনার মানুষ, মধুর হাসি
বন্ধু আমার আলমডাঙ্গা, আমি তোমায় ভালো বাসি ।