যমুনার মাঠ, আমাদের পূর্বপুরুষ থেকে আমরা এবং আমাদের উত্তর পুরুষের ইতিকথা।

238
যমুনার মাঠ ,আমাদের পূর্বপুরুষ থেকে আমরা এবং আমাদের উত্তর পুরুষের ইতিকথা।
যমুনার মাঠ

স্মৃতি- বড্ড বেশি ভাবাতুর করে দেয়, দেয় বিশ্বাসের ঘরে হানা;
কল্পোলোক ভরিয়ে দেয় দারুণ রোমান্টিকতায়।
যদি হোতাম ওয়ার্ডসওয়ার্থ,
শেলী কিংবা কিটস অথবা কাঁশ-সাদা দাড়ি-চুলে রবীন্দ্রনাথ,
তাহলে হয়ত অন্যরকম হোতো প্রকাশভঙ্গী আমার- শব্দে, কথায়, ভাবে আর ভালোবাসায়।
গ্রীষ্মের ভীষন রাগী সূর্যের রাগে ফেটে চৌচির খা খা তোমার শুন্য বুক,
আর হেটে যেতেন পূর্বপুরুষ আমাদের ক্লান্ত, বড় বেশি তৃষিত।
রাখতেন ক্লান্তি তাঁদের, জোড়াতেন তনু-মন তোমার বটোচ্ছায়ায়,
করতেন আকন্ঠ পান তোমার ইদাঁরা থেকে।
স্বপন-চোখ দিয়ে দেখতেন আকাশ,
কান পেতে শুনতেন বৃষ্টির পায়ের আওয়াজ- রিমঝিম রিমঝিম রিমঝিম।
আর তোমার উদার যমিন চকিতে অনন্ত ধানের মাঠ, দুলছে বাতাসে;
যেন সবুজ ঢেউ নিয়ে স্রোতস্বীনি যমুনার বিশাল বুক।
অতঃপর তাঁরা গোলায় তুলছেন ধান উত্তরপুরুষের জন্য।