শেকড়ের সন্ধানেঃ রাজকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায় (১৮৪৫-১৮৮৬)

136

রাজকৃষ্ণ মুখোপ্যাধায়ের ‘রাজাবালা’ গল্পগ্রন্থটি কোলকাতার জে জি চ্যাটারজি এন্ড কোং প্রেস থেকে প্রকাশিত হয় ১৮৭০ সালে। গল্পগ্রন্থটি আমাদের আলমডাঙ্গার প্রতিবেশী গ্রাম গোস্বামী দুর্গাপুরের পটভুমিতে লেখা হয়েছিল। জনশ্রুতি আছে গোস্বামী দুর্গাপুর ঐ সময় ‘দ্বিতীয় কোলকাতা’ হিসাবে পরিচিত ছিল। ১৮৭১ সালের ‘কোলকাতা রিভিউ’তে রাজাবালা গল্পগ্রন্থটির ছোট একটা পরিচিতি প্রকাশিত হয়।

সেখানে বইটি সম্পর্কে যা বলা হয় তার ভাবানুবাদ অনেকটা এরকম, ‘ঐতিহাসিক রোমান্স ঘরনার এই গল্পগ্রন্থটি স্মৃতিচারণ নির্ভর, যার পটভূমি গোস্বামী-দুর্গাপুর (Gosvami-Durgapur) নামক গ্রাম। গ্রামটি ইস্টার্ন বেঙ্গল রেলওয়ের আলমডাঙ্গা স্টেশান থেকে প্রায় চার মাইল দূরে কুমার (Kumara) নদের তীর ঘেঁষে অবস্থিত। গ্রন্থটির গল্পের গাঁথুনি মজবুত এবং গল্প বলার ভঙ্গি সাবলীল। সন্দেহ নেই যে বইটি লেখককে বাংলা সাহিত্যের একজন প্রতিযশা লেখক হিসাবে প্রতিষ্ঠা পেতে সাহায্য করবে।‘

গোস্বামী দুর্গাপুরে জন্ম নেওয়া রাজকৃষ্ণ মুখোপাধ্যায় (১৮৪৫-১৮৮৬) ছিলেন বঙ্কিমচন্দ্র চট্টপ্যাধ্যায়ের সমসাময়িক প্রতিযশা সাহিত্যিক এবং বঙ্কিমচন্দ্রের অন্তরঙ্গ বন্ধু। তিনি ফারসি, উর্দু, ওড়িয়া, সংস্কৃত, জার্মান, ফরাসি, ল্যাটিন ও পালি ভাষায় তিনি পারদর্শী ছিলেন। তবে তাঁর অধিকাংশ লেখাই ছিল বাংলায়। ভূদেব মুখোপাধ্যায়ের এডুকেশন গেজেট ও বঙ্কিমচন্দ্রের বঙ্গদর্শনে তাঁর অনেক গবেষণামূলক প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়। বাংলা গদ্য ও পদ্যে তাঁর যথেষ্ট পারঙ্গমতা ছিল।

তাঁর উল্লেখযোগ্য বাংলা রচনা:

  • যৌবনোদ্যান (১৮৬৮)
  • মিত্রবিলাপ (১৮৬৯)
  • রাজবালা (১৮৭০)
  • কাব্যকলাপ (১৮৭০)
  • প্রথম শিক্ষা বাংলা ব্যাকরণ (১৮৭২)
  • প্রথম শিক্ষা বাংলার ইতিহাস (১৮৭৪) ও কবিতামালা (১৮৭৭)

রাজকৃষ্ণের কয়েকটি উল্লেখযোগ্য ইংরেজি প্রবন্ধ হলো:

  • Hindu Philosophy (১৮৬৭ ও ১৮৭০)
  • Hindu Mythology (১৮৭০)
  • Theory of Morals and Origin of Language (১৮৭১)
  • Hints to the Study of the Bengali Language (১৮৮৩)

সুত্রঃ
Calcutta review 1871 vol-52, page-xlviii
বাংলাপিডিয়া (অনলাইন ভার্সন)